তারিখ : ২২ আগস্ট ২০১৮, বুধবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

নান্দাইলে বিদ্যালয়ে ভূয়া নিয়োগের অভিযোগ

নান্দাইলে বিদ্যালয়ের কার্যক্রম বন্ধ থাকার পরেও ভূয়া নিয়োগকৃত শিক্ষক গ্যাজেট ভূক্ত করার অভিযোগ
[ভালুকা ডট কম : ১৭ জুলাই]
ময়মনসিংহে নান্দাইল উপজেলার গাংগাইল ইউনিয়নের দ্বিতীয় পর্যায়ে জাতীয়করণকৃত পন্ডিতপুর কমিউনিটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৪জন ভূয়া নিয়োগকৃত শিক্ষকের নামে গ্যাজেট ভূক্ত করার এক গুরুতর অভিযোগ পাওয়া গেছে।

নান্দাইল উপজেলার সংসদ সদস্য মোঃ আনোয়ারুল আবেদীন খান তুহিন গত ৩০/০৭/২০১৬ ও ১৭/০২/২০১৫ আধাঁ সরকারী পত্রে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের বরাবরে উক্ত স্কুলটিতে সরকারী ভাবে শিক্ষক নিয়োগের জন্য পত্র দিয়েছেন। এছাড়া বিদ্যালয়ের জমিদাতার পুত্র মোঃ মর্তুজ আলী একই বিষয়ে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী, সচিব সহ প্রশাসনের একাধিক স্থানে উক্ত বিদ্যালয়ের কোন শিক্ষা কার্যক্রম নেই/ ছাত্র/ছাত্রী এবং শিক্ষক না থাকার বিষয়ে একাধিক বার অভিযোগ দায়ের করেন।

নান্দাইল উপজেলা পরিষদের পর পর ২টি সভায় পন্ডিপুর কমিউনিটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নামে শিক্ষক জাতীয় করণ না করার জন্য সিদ্ধান্ত গ্রহন করা হয়। কিন্তু সকল অভিযোগের পরেও অজ্ঞাত কারণে শিক্ষক কর্মরত না থাকার পরেও বর্তমানে ৪জন শিক্ষকের নাম গ্যাজেট ভূক্ত হওয়ায় এলাকার জনমনে মারাত্মক প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে।

এলাকাবাসী ও ৫নং গাংগাইল ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও নান্দাইল উপজেলা আওয়ামীলীগের সদস্য মোঃ রফিকুল ইসলাম  জানান, যে ৪জন শিক্ষকের নাম গ্যাজেট ভূক্ত করা হয়েছে। তারা কোন দিন এই বিদ্যালয়ে শিক্ষাকতা করে নাই। এছাড়া এই বিদ্যালয়ের কোন ছাত্র/ছাত্রী না থাকায় কার্যক্রম ছিল না। মোঃ রফিকুল ইসলাম আরো জানান, বিদ্যালয়টি জাতীয়করণ করার বিষয়ে তাদের কোন আপত্তি নেই। কিন্তু কোন ভূয়া শিক্ষক নিয়োগের বিষয়টি তারা মেনে নিবেন না। নেতৃবৃন্দ ও এলাকাবাসী সরকারী ভাবে নিয়োগকৃত শিক্ষক এই বিদ্যালয়ে পদায়ন করার জোর দাবী জানান।

সংসদ সদস্য মোঃ আনোয়ারুল আবেদীন খান তুহিন জানান, তাঁর পক্ষ থেকে উক্ত বিদ্যালয়ের বিষয়ে ২টি পত্র দেওয়ার পরেও কিভাবে ভূয়া শিক্ষক নিয়োগ করা হলো তার বোধগম্য হচ্ছে না। তিনি বিষয়টি আগামী সংসদ অধিবেশনে উত্তাপন করবেন বলে জানান।

নান্দাইল উপজেলা শিক্ষা অফিসার জানান, উক্ত বিদ্যালয়ের শিক্ষক নিয়োগ ও ছাত্র/ছাত্রীর বিষয়ে তার দপ্তরে কোন ফাইল নাই। এলাকাবাসী জরুরী ভাবে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে বিষয়টি তদন্ত পূর্বক ভূয়া নিয়োগকৃত ৪জন শিক্ষকের নিয়োগ বাতিল করে সরকারী ভাবে উক্ত পন্ডিতপুর কমিউনিটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষক নিয়োগের ব্যবস্থা গ্রহনের জোর দাবী জানিয়েছেন। #






সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

শিক্ষাঙ্গন বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ৫২৫ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই