তারিখ : ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮, মঙ্গলবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

নান্দাইলে ঈদ উপলক্ষ্যে ৩৫টি অবৈধ হাট বসানোর পায়তারা

নান্দাইলে ঈদ-উল-আযহা উপলক্ষ্যে ৩৫টি অবৈধ হাট বসানোর পায়তারা
[ভালুকা ডট কম : ১৮ আগস্ট]
ময়মনসিংহের নান্দাইলে উপজেলা সদর সহ ১২ ইউনিয়নে ঈদ-উল-আযহা উপলক্ষ্যে অবৈধ হাট বসানোর পায়তারা চলছে। এতে করে প্রতিবছরের মতো সরকার লাখ লাখ টাকা রাজস্ব আয় থেকে বঞ্চিত হবে।

প্রশাসনিক সূত্রে জানা যায়, বর্তমানে ইজারাকৃত হাট-বাজারের সংখ্য ৪৪টি। ছোট-বড় একাধিক হাট-বাজার রয়েছে ইজারা ডাকের বাইরে। এছাড়া সারা বছর নিয়মিত পশুর হাটের সংখ্যা রয়েছে ১৩টি। এর মধ্যে সবচেয়ে বড় নান্দাইল সদর ইউনিয়নের হেমগঞ্জ বাজার, চন্ডীপাশা ও গাংগাইল ইউনিয়নের নান্দাইল রোড বাজার ও বাশঁহাটি পশুর হাট এবং শেরপুর ইউনিয়নের পাঁচরুখী বাজার। কয়েক বছর ধরে প্রশাসন এই চারটিতে ইজারা দিতে না পারায় খাস আদায় চলছে। তবে বাশঁহাটি বাজারে স্থানীয় একটি সিন্ডিকেট ইজার টাকা আদায় করে নিজেরাই ভোগ করছে। এই পদ্ধতিতে সরকার প্রচুর রাজস্ব হারাচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

স্থানীয়রা জানায়, বিগত বছরে সরকারিভাবে ইজারা দেওয়া ৩৫টি বাজারে প্রশাসনের অনুমতি না নিয়ে কোরবানির ঈদ উপলক্ষে পশু বিক্রির হাট বসানো হয়েছিল। বেতাগৈর ইউনিয়নের শিবপুর বাজারের সরকারি ডাক ধার্য হয়েছে এক হাজার ১৭০ টাকা। এই রকম তিন থেকে আট হাজার টাকার ডাকের বাজারও রয়েছে অনেক। এই বাজারগুলোতে প্রতিবছর গরুর হাট বসায় সরকারি দলের স্থানীয় নেতাকর্মী ছাড়াও প্রভাবশালীরা। অবৈধভাবে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিলেও তাদের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নেয়নি প্রশাসন।

স্থানীয় বিভিন্ন সূত্রে জানাযায়, মোয়াজ্জেমপুর ইউনিয়নের সাহেব বাজার, রাজগাতী ইউনিয়নের কালীগঞ্জ বাজারে সাথে একটি ফাও বাজার, মুশুলী ইউনিয়নের তারঘাট ও চকমতি বাজার, গাংগাইল ইউনিয়নের বিয়ারা গ্রামে বাংলাবাজার সহ এধরনের ৩৫টি ফাও বাজার বসনোর পায়তারা চলছে। এধরনের কিছু কিছু বাজারে পশুর হাট বসা শূরু হয়েছে।

নান্দাইল উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল মালেক চৌধুরী স্বপন বলেন,ঈদুল আজহা উপলক্ষে কোরবানির পশুর হাট বসানোর জন্য অনেক আবেদন জমা পড়েছে। তবে বৈধ হাটের বাইরে কোনো হাটের অনুমতি দেওয়া হয়নি।

নান্দাইল উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোসাদ্দেক মেহদী ইমাম বলেন,অবৈধ বাজার পশুর হাট বসানো বন্ধের জন্য তিন সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়েছে। অবৈধ পশুর হাট বসলে জরিমানা সহ আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।#





সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

ভালুকার বাইরে বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ৫৩২ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই