তারিখ : ২১ নভেম্বর ২০১৮, বুধবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

নওগাঁয় মিলছে একের পর এক আগ্নেয়াস্ত্রের সন্ধান

নির্বাচনকে সামনে রেখে নওগাঁয় মিলছে একের পর এক আগ্নেয়াস্ত্রের সন্ধান
[ভালুকা ডট কম : ১৭ অক্টোবর]
নওগাঁয় একের পর এক মিলছে অবৈধ আগ্নেয়াস্ত্রের সন্ধান। সেই সাথে বাড়ছে বিভিন্ন অপরাধমূলক কর্মকান্ড। হঠাৎ এমন অস্ত্র উদ্ধার হওয়া ও অপরাধমূলক কর্মকান্ড দেখে সংকিত ও আতঙ্কিত নওগাঁর সচেতন মহল। তারা বলছেন, জেলা থেকে অবৈধ অস্ত্র মুক্ত করা না গেলে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন সুষ্ঠভাবে করা সম্ভব নয়। তবে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রন রাখতে নিরলসভাবে কাজ করছেন আইন শৃংঙ্খলা বাহিনী।

সূত্রে জানা, ১০ সেপ্টেম্বর জেলার সীমান্ত ঘেষা ধামইরহাট উপজেলার রূপনারায়ন গ্রাম থেকে পরিত্যাক্ত একটি পিস্তল উদ্ধার করে বিজিবি। এর তিন দিন পর নওগাঁ সদর উপজেলা থেকে ১৪ মামালার আসামীর বাড়ী থেকে উদ্ধার করে গুলিসহ পিস্তল। কিছুদিনের ব্যবধানে জেলা থেকে উদ্ধার হয়েছে বেশ কিছু আগ্নেয়াস্ত্র।

সম্প্রতি উদ্ধার হওয়া অস্ত্রের তালিকা
তারিখ             অস্ত্রের ধরন        সংখ্যা
১০ সেপ্টেম্বর        বিদেশী পিস্তল        ১টি
১৩ সেপ্টেম্বর        বিদেশী পিস্তল        ১টি
১৬ সেপ্টেম্বর        বিদেশী পিস্তল        ১টি
১৭ সেপ্টেম্বর         দেশী পিস্তল          ১টি
১৯ সেপ্টেম্বর         বিদেশী পিস্তল        ১টি
২৬ সেপ্টেম্বর         বিদেশী ছোরা        ১টি
০৩ সেপ্টেম্বর         বিদেশী ছোরা        ১টি

নির্বাচন যতই ঘনিয়ে আসছে সম্প্রতিকালে আইন শৃংখলারক্ষাকারী বাহিনী কর্তৃক বিভিন্ন অস্ত্র উদ্ধারের মধ্যদিয়ে পূর্বাভাস পাওয়া যাচ্ছে। সীমান্তবর্তী জেলা হওয়ায় এই জেলাকে রুট হিসাবে ব্যবহার করে সন্ত্রাসীরা অস্ত্র নিয়ে যাচ্ছে। নির্বাচনকে সামনে রেখে অতৎপরতা বৃদ্ধি করতে না পারে, অস্ত্রের ব্যবহার না বাড়াতে পারে এজন্য আইন শৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনীকে আরও বেশী তৎপর থাকার কথা জানান।

নওগাঁর সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন একুশে পরিষদের সভাপতি এ্যাড. ডিএম আব্দুল বারী বলেন, বাঙ্গালী জাতির এখন একমাত্র আলোচনা আর সমালোচনার বিষয় আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন। নির্বাচনে অবৈধ অস্ত্রের ব্যবহার যে কেউ করুক না কেন সাধারন মানুষের জন্য আতংক ও ক্ষতিকর বিষয়। অবাধ, সুষ্ঠ নির্বাচনের জন্য অবৈধ অস্ত্র বড় অন্তরায়। এই অস্ত্রগুলি নির্বাচনের আগে উদ্ধার করা উচিত। উদ্ধার হয়েছে আরও হওয়া উচিত বলে করেন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের এই নেতা।

পুলিশ সুপার ইকবাল হোসেন বলেন, নির্বাচনকে সামনে রেখে কেউ যেন অবৈধ অস্ত্র রাখতে না পারে সেই লক্ষ্যেই কাজ করছে পুলিশ প্রশাসন। নির্বাচনকে সামনে কোন অবৈধ কাজের সঙ্গে জড়িত কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না। ইতোমধ্যেই দুটি অস্ত্র ও ৫ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়েছে। নির্বাচনে আগে এই জেলা অবৈধ অস্ত্র মুক্ত করা হবে এবং নির্বাচনের সুষ্ঠ পরিবেশ গড়ে তোলার জন্য দিন-রাত নিরলস ভাবে কাজ করছে পুলিশ প্রশাসন।

নওগাঁ ১৪ বিজিবির অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল জাহিদ হাসান বলেন, আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে মাদকদ্রব্য ও অবৈধ অস্ত্র দুটোর বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ সর্তক অবস্থায় রয়েছে বিজিবি। পাশাপাশি অবৈধ অস্ত্র অনুপ্রবেশ যাতে না ঘটে সেজন্য কাজ করছে বিজিবি। জেলার ৩টি সীমান্তবর্তি এলাকায় বিজিবির টহল আরো জোরদার করা হয়েছে। সেই সঙ্গে সীমান্তের কাছ দিয়ে কোন প্রকারের লোকজনের যাওয়া-আসার উপর কঠোর নজরদারী করা হচ্ছে।#





সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

অপরাধ জগত বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ৫৩৯ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই