তারিখ : ১৯ অক্টোবর ২০১৯, শনিবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

শিশুর এপেন্ডিসাইটিস ও করণীয়

শিশুর এপেন্ডিসাইটিস ও করণীয়
[ভালুকা ডট কম : ২০ সেপ্টেম্বর]
মানুষের তলপেটের ডান পাশে  বৃহদন্ত্রের সঙ্গে জোড়া লাগানো একটি সরু ও শেষ দিকে বন্ধ নলের মতো অঙ্গের নাম হলো এপেন্ডিক্স। এটি দুই থেকে কুড়ি সে.মি লম্বা হয়ে থাকে। এর প্রদাহ হলেই এটিকে এপেন্ডিসাইটিস বলে। এপেন্ডিসাইটিস হলে তলপেটের ডান দিকে প্রচন্ড ব্যথা হয়।

এপেন্ডিসাইটিসের ব্যথা সাধারণত নাভির চারপাশে বা নাভির একটু ওপর থেকে শুরু হয়। কয়েক ঘণ্টা পর তলপেটের ডান দিকের অংশে ব্যথাটা স্থায়ী হয়। থেমে থেমে ব্যথা ওঠে সেটা তীব্র ও হালকা—দুই রকমেরই হতে পারে। এ ছাড়া বমি বমি ভাব, বমি, জ্বর ও কোষ্ঠকাঠিন্য থাকতে পারে। পরবর্তীতে রোগীর এপেন্ডিক্সের চারদিকে বিভিন্ন অঙ্গাণু জমা হয়ে পেটে একটি চাকা বা ফোঁড়া তৈরি হতে পারে। দ্রুত চিকিৎসা না করা হলে এপেন্ডিক্স ছিদ্র হয়ে খাদ্যনালির ভেতরের বিভিন্ন উপাদান, পরিপাক হয়ে যাওয়া খাবারের অংশ ও মল বেরিয়ে পুরো পেটে ছড়িয়ে পড়তে পারে।

এমনকি জীবাণু রক্তেও ছড়িয়ে হতে পারে গুরুতর সংক্রমণ (সেপটিসেমিয়া) ফলে রুগী মারাও যেতে পারে।  রুগীর উপসর্গ লক্ষণ দেখে রক্ত পরীক্ষা ও আল্ট্রাসনোগ্রাফি করে এপেন্ডিসাইটিস রোগ নির্ণয় করা হয়। এপেন্ডিসাইটিসের চিকিৎসা হলো ভালো গ্র‍্যজুয়েট সার্জন দ্বারা দ্রুত অপারেশন করে নেওয়া। #





সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

স্বাস্থ্য বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ৯২৯ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই