তারিখ : ০১ অক্টোবর ২০২০, বৃহস্পতিবার

সংবাদ শিরোনাম

ভালুকার করোনা আপডেট

২৯ জুন ২০২০, সোমবার
আক্রান্ত
২৪ ঘন্টা মোট
৫ জন ২২৯ জন
সুস্থ
২৪ ঘন্টা মোট
০ জন ৮২ জন
মৃত্যু
২৪ ঘন্টা মোট
০ জন ৩ জন

বিস্তারিত বিষয়

ভালুকার রাস্তায় রাস্তায় যৌথ বাহিনীর টহল শুরু

ভালুকার রাস্তায় রাস্তায় যৌথ বাহিনীর টহল শুরু
[ভালুকা ডট কম : ২৬ মার্চ]
ভালুকা উপজেলার রাস্তায় রাস্তায় যৌথ বাহিনীর টহল শুরু হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাসুদ কামালের নেতৃত্বে যৌথ বাহিনীর টহল দলটিকে রাস্তায় টহল দিতে দেখা দেখা যায়।ইউএনও মাসুদ কামাল ছাড়াও টহল দলে অংশ গ্রহন করেন, ভালুকা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ, লে. কর্ণেল মোঃ সাফি,ভালুকা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাইন উদ্দিন, পরিদর্শক (তদন্ত) খোরশেদ আলম প্রমুখ।

এর আগে রাত ৮টা থেকে সাড়ে ১১টা পর্যন্ত উপজেলা সহকারী কমিশনার(ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রোমেন শর্মার নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল পৌর সদরের মেজর বিটা এলাকা,উপজেলা পরিষদের সামনের রাস্তা, শাপলা সিনেমা হল মোড়,স্মৃতি সৌধ চত্তর এলাকায় এ অভিযান পরিচালনা করেন। প্রশাসনের নিষেধাজ্ঞা না মেনে ভালুকা পৌরসদরে চায়ের স্টল ও ফুটপাতে রাতের বেলায় আড্ডা দেওয়ায় ধমক ও ধাওয়া দিয়ে ঘরে পাঠিয়েছে তখন এই দলটি।

সহকারী কমিশনার (ভূমি) রোমেন শর্মা বলেন, বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় মানুষকে সচেতন করতে নানা ধরণের পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে। রাতেও যাতে মানুষ রাস্তায় মোড়ের চায়ের স্টলে আড্ডা ও অযথা ঘোরাঘুরি করতে না পারে সে জন্য তাদেরকে বাসায় পাঠিয়ে দিচ্ছি।

আমরা চেষ্টা করেছি জনগণকে সচেতন করতে। জনগণকে বাসায় রাখতে। কিছু কিছু জায়গায় যারা মানছেন না তাদের কে বুঝিয়ে বা বলপ্রয়োগ করে বাসায় পাঠানো হচ্ছে। আমরা রাস্তায় রাস্তায় ঘুরছি জনগনের মধ্যে সচেতনতা ও নিরাপত্তা দেয়ার জন্যই। আপনারা বাসায় থাকুন। সরকারের ঘোষিত অনির্ধারিত ১০ দিনের লকডাউন কার্যকর করার জন্য সবার সহযোগিতা প্রয়োজন। রাতে ভালুকা পৌরসদরের বিভিন্ন স্থানে ঘুরেছি।প্রায় প্রতিটি ক্ষেত্রে জনগণের সচেতনতা লক্ষ্য করা গেছে। দেশের সাধারণ জনগণ সরকারের সিদ্ধান্তের সাথে একমত পোষণ করেছে। তারা সচেতন হয়েছে। আপনারা ঘরে অবস্থান করেন, আপনি ও আপনার পরিবারকে নিয়ে ভালো থাকেন। দেশকে ভালো রাখেন, দেশকে সুস্থ রাখেন। যদি এর ব্যাপ্তয় ঘটে তাহলে আপনাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করতে বাধ্য হবো।

ভালুকা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাসুদ কামাল বলেন, সরকার ঘোষিত ১০ দিনের লকডাউন বাস্তবায়ন করতে বুধবার সকাল থেকে মাঠপর্যয়ে কাজ শুরু করেছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে ভালুকা উপজেলা জুড়ে টহল দেওয়া শুরু করেছে প্রশাসনের নেতৃত্বে পুলিশ ও সেনাবাহিনীর যৌথদল। ওষুধপত্র ও নিত্য প্রয়োজন জিনিস পত্রের দোকান পাট ছাড়া সব দোকান আগামী ৪ এপ্রিল পর্যন্ত বন্ধ থাকবে। করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় মানুষকে সচেতন করতেই এই পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে। বিশেষ প্রয়োজন ছাড়া কাউকে রাস্তায় থাকতে দেয়া হবে না।#




সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

ভালুকা বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ১২৮৩ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই