তারিখ : ০২ জুলাই ২০২০, বৃহস্পতিবার

সংবাদ শিরোনাম

ভালুকার করোনা আপডেট

২৯ জুন ২০২০, সোমবার
আক্রান্ত
২৪ ঘন্টা মোট
৫ জন ২২৯ জন
সুস্থ
২৪ ঘন্টা মোট
০ জন ৮২ জন
মৃত্যু
২৪ ঘন্টা মোট
০ জন ৩ জন

বিস্তারিত বিষয়

ভারতে লকডাউনের মেয়াদ বাড়ল ৩০ জুন পর্যন্ত

ভারতে লকডাউনের মেয়াদ বাড়ল ৩০ জুন পর্যন্ত
[ভালুকা ডট কম : ৩০ মে]
ভারতে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ আশঙ্কাজনক হারে বাড়তে থাকায় লকডাউনের মেয়াদ পঞ্চম দফায় ৩০ জুন পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে। তবে এটি কার্যকর হবে কনটেইনমেন্ট জোনে। বাকী সর্বত্রই ৮ জুন থেকে অফিস, বড় বড় বিপনী বিতান, হোটেল ও রেস্তোঁরা সবই খুলে দেয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে।

আজ (শনিবার) সন্ধ্যায় ভারতের স্বরাষ্ট্র দপ্তর থেকে প্রচারিত এক নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, রাত ন’টা থেকে পরদিন ভোর পাঁচটা পর্যন্ত কারফিউ সর্বত্র বলবৎ থাকবে। এই সময়ে অত্যাবশ্যকীয় কাজের সঙ্গে জড়িতরা ছাড়া কেউ বাড়ি থেকে বের হতে পারবেন না। আগামীকাল রোববারই শেষ হচ্ছে চতুর্থ দফার লকডাউন। তবে পঞ্চম দফায় লকডাউন বাড়ানো এবং জনজীবন ও অর্থনীতিকে আরও সচল করার বিভিন্ন উপায় নিয়ে গত দুদিন ধরে জোর তৎপরতা চলেছে। প্রথমে কেবিনেট সচিব সব রাজ্যের মত নিয়েছেন।

এরপর স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ সব রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে করোনা পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনার পাশাপাশি তাদের মতও নিয়েছেন। তারপরই গত শুক্রবার ও আজ শনিবার প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী দীর্ঘ সময় বৈঠক করেছেন। এরপরেই স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে।

এই নির্দেশিকায় আগামী ৮ জুন থেকে সব ধর্মীয় স্থাপনা খুলে দেয়ার কথা হয়েছে। তবে সর্বত্র স্বাস্থ্যবিধি ও সামাজিক দূরত্ব মেনে চলার ওপর জোর দেয়া হয়েছে। তিন পর্যায়ে লকডাউনের আগের জারি করা বিধি তুলে নেয়ার প্রস্তাব করা হয়েছে। স্কুল-কলেজসহ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার বিষয়টি জুলাইয়ে বিবেচনা করা হবে। সেই সঙ্গে ট্রেন ও মেট্রো চলাচলের বিষয়েও সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

তবে কয়েকটি বিষয়ের উপর নিষেধাজ্ঞা আপাতত জারিই থাকছে। এর মধ্যে থাকছে মেট্রো রেল, আন্তর্জাতিক যাত্রীবাহী বিমান, সিনেমা হল, বিনোদন পার্ক, থিয়েটার হল, বার, জিম, সুইমিং পুল-সহ সামাজিক-রাজনৈতিক-ক্রীড়া-বিনোদন-সাংস্কৃতিক এবং ধর্মীয় সমস্ত ধরণের  বড় অনুষ্ঠান ও জমায়েত। তৃতীয় দফায় গিয়ে এগুলো খোলার দিন ঘোষণা করা হবে পরিস্থিতি বিবেচনা করে।

এদিকে, পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যে আরও দুই সপ্তাহের জন্য লকডাউন বাড়ানো হয়েছে। শনিবার বিকেলে রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে জারি করা নির্দেশিকায় এমনটাই ঘোষণা করা হয়েছে। নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, কার্যকরিভাবে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রুখতে অ্যাফেক্টেড এলাকায় (কনটেনমেন্ট জোন) লকডাউন বজায় রাখা এবং একইসঙ্গে আর্থ-সামাজিক জাগরণের জন্য অন্যান্য এলাকা বিভিন্ন কাজ শুরু করার প্রয়োজনীয়তা অনুভব হয়েছে। তাই বাড়তি ছাড় এবং শর্তসাপেক্ষে আরও দু'সপ্তাহ অর্থাৎ আগামী ১৫ জুন পর্যন্ত লকডাউন বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে পশ্চিমবঙ্গ সরকার।অর্থাৎ অ্যাফেক্টেড বা ‘এ’ কনটেনমেন্ট জোনে কোনও গতিবিধি এবং কাজে ছাড় দেওয়া হবে না। সেখানে কঠোরভাবে লকডাউন লাগু করা হবে। তবে কনটেনমেন্ট ‘বি’ এবং ‘সি’ জোনে একাধিক গতিবিধিতে ছাড় থাকবে। সংশ্লিষ্ট জোনদুটিতে এতদিন যে ছাড় ছিল, তা থাকছেই।

এর আগে শুক্রবার সংবাদ সম্মেলনে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় স্পষ্ট ভাষায় জানিয়ে দেন, ১ জুন থেকে রাজ্য অনেকটাই স্বাভাবিক ছন্দে হাঁটবে। ওই দিন থেকেই রাজ্যের সমস্ত চা এবং জুট শিল্প খুলে যাচ্ছে বলেই ঘোষণা করেন তিনি। পাশাপাশি আগামী ১০ জুন থেকে রাজ্যের সমস্ত অফিস পুরোদমে খুলে যাবে বলেও ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী। ওদিকে ১ জুন সকাল ১০ টা থেকেই রাজ্যের সমস্ত মন্দির-মসজিদ-গির্জা খোলার অনুমতি দেওয়া হবে বলেও ঘোষণা করেন তিনি। তবে কোনও ধর্মস্থানেই একসঙ্গে ১০ জনের বেশি মানুষ সেখানে ঢুকতে পারবেন না বলেও পরিষ্কার নির্দেশ দেন মুখ্যমন্ত্রী।সূত্র-timesofindia.indiatimes





সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

দেশের বাহিরে বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ১২৭৯ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই